মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

দৌলতখান আবু আবদুলস্না কলেজ , দৌলতখান , ভোলা।

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

দৌলতখান আবু আবদুলস্না কলেজটি ১৯৮৩ সালের ৪ মে প্রতিষ্ঠা হলেও ১৯৮৪ সলের ১ জুলাই যশোর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক মানবিক , বাণিজ্য ও বিজ্ঞান বিভাগের স্বীকৃতি লাভ করে। ১৯৮৩-৮৪ শিক্ষা বর্ষের শিক্ষার্থীরাই ১৯৮৫ সালের উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট পরীক্ষা অত্র কলেজ কেন্দ্রেই দেয়। ১৯৮৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক ডিগ্রি পর্যায়ে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির অনুমতি পায়। ১৯৮৭ সালের ১ জুলাই বি,এ ও বাণিজ্য এবং ১৯৯৫ সাল থেকে বি,এস,সি , পর্যায়ে স্বীকৃতি লাভ করে।

০৪/০৫/১৯৮৩

দ্বীপাঞ্চল ভোলার পূর্ব প্রান্তে মেঘনার পশ্চিম তীরে অবস্থিত উপজেলা দৌলতখান। এক সময় দৌলতখানই ছিল ভোলার প্রাণকেন্দ্র মহকুমা সদর। শিক্ষা , সভ্যতা , নম্রতা , ভদ্রতা ও সাংস্কৃতিক দিক দিয়ে এই উপজেলাটি সবচেয়ে এগিয়ে থাকলেও ছিলনা কোন উচ্চ শিক্ষার প্রতিষ্ঠান। বহুদিন ধরে এলাকাবাসী ও বিশিষ্টজনদের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ার লালিত স্বপ্ন পূরণ হয় ১৯৮৩ সালে। ১৯৮৩ সালের গোড়ার দিকে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের ও প্রশাসনের সমন্বিত সিদ্ধান্ত মোতাবেক কলেজ প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব অর্পণ করা হয় দক্ষিণ বঙ্গের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অবসর প্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ জাকীর হোসেন সাহেবের উপর। এই প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় , এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতা ও বিশিষ্টজনদের অর্থানুকূল্যে ‘ দৌলতখান কলেজ’ নামে প্রতিষ্ঠানটি পদযাত্রা শুরু করে। পরবর্তীতে দৌলতখানের আরেক কৃতি সন্তান তদানিন্তন পাকিস্তান সরকারের সৎ ও ন্যায়পরায়ন পুলিশ অফিসার মরহুম আবু আবদুল্লা এর মায়ের নামে গঠিত ‘ মাহমুদা খাতুন মেমোরিয়াল ট্রাস্টি বোর্ডের’ ২,৫০,০০০/- (দুই লাখ পঞ্চাশ হাজার) টাকা অনুদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ‘‘ দৌলতখান আবু আবদুল্লা কলেজ’’ নামকরণ করা হয়। কলেজটি বর্তমানে ৮.৫০ একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত। এখানে অবকাঠামোগত দিক থেকে একটি দ্বিতল বিশিষ্ট প্রশাসনিক ভবণ , তৃতল বিশিষ্ট বিজ্ঞান ভবণ , ৫টি টিন সেডের একাডেমিক ভবণ , মসজিদ ও বি,এন.সি,সি’র একটি আধাপাকা ভবণ , একটি শিক্ষক ডরমেটরি , ছাত্রাবাস , ছাত্র ও ছাত্রী কমনরুম রয়েছে। এ ছাড়াও অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষসহ মোট ৯টি শিক্ষক পরিবারের আবাসন ব্যবস্থা রয়েছে। অত্র কলেজে ডিগ্রি ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে মোট ১৯টি বিষয়ে পাঠদান করা হয়। সহশিক্ষা কার্যক্রম হিসেবে রোভার ও বি,এন,সি,সি চালু রয়েছে।

                  বর্তমানে কলেজটির অধ্যক্ষ হিসেবে জনাব ফরিদ উদ্দীন আহমেদ ও উপাধ্যক্ষ হিসেবে জনাব এ , কে , এম , শাহাবুদ্দিন , ১২ জন সহকারী অধ্যাপক , ২৯ জন প্রভাষক , ৫ জন প্রদর্শক , ১ জন শরীরচর্চা শিক্ষক , ১ জন গ্রন্থাগারিক , ৩ জন অফিস সহকারী এবং ১৩ জন ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারী কর্মরত আছেন।

                  দৌলতখান আবু আবদুল্লা কলেজটি ১৯৮৩ সালের ৪ মে তারিখে প্রতিষ্ঠিত হলেও ১৯৮৪ সালের ১ জুলাই যশোর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক কলা , বাণিজ্য ও বিজ্ঞান বিভাগ স্বীকৃতি লাভ করে। পরবর্তীতে ১৯৮৬ সালে ঢাকবিশ্ববিদ্যালয় ডিগ্রি পর্যায়ে শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমতি দান করে। ১৯৮৭ সালের ১ জুলাই বি এ , বি কম এবং ১৯৯৫ সালে বি , এস , সি , পর্যায়ে স্বীকৃতি প্রাপ্ত হয়।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
ফরিদ উদ্দীন আহমেদ। ০১৭১৮৭২১৬৬০ , ০১৮১৭৬৩০৩৫৬ daacollege1983@yahoo.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণী ভিত্তিক)ঃ

উচ্চ মাধ্যমিক

ডিগ্রি

শ্রেণী

শিক্ষার্থীর সংখ্যা

বর্ষ

শিক্ষার্থীর সংখ্যা

একাদশ

৩৭১ জন

১ম বর্ষ

১৪৪ জন

দ্বাদশ

৩১৬ জন

২য় বর্ষ

৮৭ জন

 

 

৩য় বর্ষ

১৪৪ জন

মোট

 ৬৮৭                   +       ৩৭৫      =       ১,০৬২ জন।

৮৩%

বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্যঃ

ক্রমিক নং

নাম

পদবী

মোবাইল নং

০১

জনাব নাছির আহমেদ খান

সভাপতি

০১৭১১১২৭১৯৫

০২

জনাব ফরিদ উদ্দীন আহমেদ

সদস্য সচিব

০১৭১৮৭২১৬৬০

০৩

জনাব সালেহ উদ্দিন তাং

শিক্ষানুরাগী

 

০৪

জনাব আলী আজম

শিক্ষানুরাগী

 

০৫

জনাব মুন্সী ওবায়দুল্লাহ রতন

শিক্ষানুরাগী

 

০৬

জনাবা আইনুন নাহার বিনু

শিক্ষানুরাগী

 

০৭

জনাব আনোয়ার হোসেন

অভিভাবক সদস্য

 

০৮

জনাব আনোয়ারুল ইসলাম

অভিভাবক সদস্য

 

০৯

জনাব শফিকুল ইসলাম

অভিভাবক সদস্য

 

১০

জনাব শফিকুল মাওলা ফারুক

শিক্ষক প্রতিনিধি

 

১১

জনাব মোশতাক আহমেদ

শিক্ষক প্রতিনিধি

 

১২

জনাব আব্দুল খালেক

শিক্ষক প্রতিনিধি

 

১৩

জনাব আজাদ হোসেন

দাতা সদস্য

 

পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলঃ

উচ্চ মাধ্যমিক

ডিগ্রি

সাল

বিভাগ

পরীক্ষার্থীর সংখ্যা

পাশের সংখ্যা

সাল

বিভাগ

পরীক্ষার্থীর সংখ্যা

পাশের সংখ্যা

২০০৯

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

মানবিক

১৮

২৪

১২৩

১৬

১৫

৯৬

 

২০০৮

কলা

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

৫১

০৭

০৬

৪৮

০৪

০৬

২০১০

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

মানবিক

৫৬

৯২

২২৪

৫৬

৯১

১৮৭

 

২০০৯

কলা

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

৪০

১৩

০১

২৩

০৮

০০

২০১১

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

মানবিক

৬১

৯০

১৭২

৪৯

৭৯

১৩৫

 

২০১০

কলা

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

৬৪

০৯

-

৩৫

০৫

-

২০১২

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

মানবিক

৬৩

১২৬

১৭৫

৫৭

১১৮

১৫১

 

২০১১

কলা

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

১২৫

১৭

০৮

৬১

১১

০৪

২০১৩

বিজ্ঞান

বাণিজ্য

মানবিক

৬৯

১৪৪

১৪৬

৪৭

১১৪

৯২

 

 

 

 

শিক্ষা বৃত্তির তথ্যঃ বিগত ৫ বছরের শিÿা বৃত্তির তথ্য নিমণরূপঃ

উচ্চ মাধ্যমিক

ডিগ্রি

২০০৮-’০৯

১ জন

২০০৯-’১০

৫জন

২০১০-’১১

৭ জন

২০১১-’১২

৭ জন

২০১২-’১৩

৯ জন

 

 

 

২০০৯-’১০

১ জন

২০১০-’১১

১ জন

২০১১-’১২

১ জন

 

অর্জনঃ

            কলেজটি প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে বর্তমান পর্যন্ত বিভিন্ন পরীক্ষায় সন্তোষজনক ফলাফল করে চলেছে। পাবলিক

পরীক্ষায় ফলাফলের স্বীকৃতি স্বরূপ ডিগ্রি পর্যায়ে ২০০১ সালে বি , এস ,সিতে বরিশাল বিভাগে ১ম স্থান লাভ করায় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক পুরস্কার স্বরূপ ১ লাখ টাকা প্রাপ্ত হয়। ১৯৯৯ সলে বি , এ (পাস) পরীক্ষায় অত্র কলেজের পরীক্ষার্থী ১৭তম এবং ২০০১ সালে বি, এস , সি , (পাস) পরীক্ষায় ১৩তম স্থান লাভ করে।

      এ ছাড়াও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ২০০৭ সালের পাসের হারের ভিত্তিতে বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের সেরা দশের মধ্যে ৪র্থ তম স্থান , ২০১০ সালে পাসের হারে সেরা বিশের মধ্যে ৭ম স্থান এবং ২০১১ সালের পাসের হারে সেরা বিশে ২০তম স্থান লাভ করে।

ভবিষ্যত পরিকল্পনাঃ

            কলেজটিতে বিভিন্ন বিভাগে অনার্স কোর্স চালু করে বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে উন্নীত করার পরিকল্পনা বিবেচনাধীন

            রয়েছে।

daacollege1983@yahoo.com  , টেলিফোনঃ ০৪৯২৪-৫৬১২৯ ।

মেধাবী জি , পি , এ ৫ প্রাপ্ত ছাত্র/ছাত্রীবৃন্দের তালিকা সন অনুসারেঃ

উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে

২০০৯

১০ জন

২০১০

১৯ জন

২০১১

২১ জন

২০১২

১৩ জন

২০১৩

২৫ জন